মিরপুরে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে ‘জঙ্গি’রা

0
1700
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক নিউজ : রাজধানীর মিরপুরের মাজার রোডের বাঁধন সড়কের বর্ধনবাড়ি এলাকার ভাঙ্গাওয়াল গলির ছয়তলা বিশিষ্ট বাড়িতে ‘জঙ্গি’রা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

ওই বাড়িতে পরপর চারটি বড় ধরনের বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে। এছাড়া আকাশে কালো ধোঁয়া উড়তেও দেখা যায়। এ সময় বাতাসে বারুদের গন্ধ পাওয়া যায়।

বুধবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের প্রধান মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আমরা বেশ কয়েকবার তাদেরকে আত্মসমর্পণের কথা বলেছিলাম। এরপর তারা সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে আত্মসমর্পণের কথা জানিয়েছিল। এই সময় পার হয়ে গেলেও এরপর যখন তারা আত্মসমর্পণ করছিল না তখন আমাদের পক্ষ থেকে আবারও যোগাযোগ করা হয়। এ সময় তারা আরও ৩০ মিনিট সময় চায়। এর পরপরই শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটায় তারা। এতে কেমিক্যাল এক্সপ্লোশন হয়ে ওই বাড়ির পাঁচতলায় আগুন ধরে যায়।

মুফতি মাহমুদ খান বলেন, বিস্ফোরণের ফলে স্প্লিন্টারে চার র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

জঙ্গিরা বেঁচে আছে কি না? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং প্রধান বলেন, এখন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা কাজ করবেন ওখানে। এরপর আইনের ধারা মোতাবেক তল্লাশি চালিয়ে সব খতিয়ে দেখা হবে।

প্রসঙ্গত, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে সোমবার রাত সাড়ে ১২টা থেকে ঘিরে ফেলা হয় রাজধানীর মিরপুরের মাজার রোডে বাঁধন সড়কের বর্ধনবাড়ি এলাকার ভাঙ্গাওয়াল গলির ছয়তলা বিশিষ্ট একটি বাড়ি।

র‌্যাব জানায়, বাড়িটিতে দুই স্ত্রী, সন্তান ও সহযোগীসহ দুর্ধর্ষ জঙ্গি আব্দুল্লাহ অবস্থান করছেন। সেখানে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরকও মজুদ করে রাখা হয়েছে।

বাড়িটিতে মোট ২৪টি ফ্ল্যাট রয়েছে। তবে এরই মধ্যে নারী ও শিশুসহ অন্য সব বাসিন্দাদের নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এর আগে বাড়িটির গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়। এছাড়া টেলিফোন, ডিস ও ইন্টারনেট সংযোগও বিচ্ছিন্ন করা হয়।

শেয়ার করুন