১৫২২ দিন পর পাওয়া বাংলাদেশের সেই ঐতিহাসিক জয়

0
1417
Print Friendly, PDF & Email

ক্রীড়া ডেস্ক : আজ ১০ জানুয়ারি। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে লাল হরফে লেখা দিন। ১৩ বছর আগে এই দিনে বাংলাদেশ প্রথম টেস্ট ম্যাচ জিতেছিল। ২০০০ সালে টেস্ট পরিবারের সদস্য হওয়ার পর নিজেদের ৩৫তম টেস্টে টাইগাররা প্রথম সাফল্যের সাক্ষাৎ পায়।

টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর ২০০০ সালের ১০ নভেম্বর ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলে বাংলাদেশ। আর প্রথম জয় পায় ২০০৫ সালের ১০ জানুয়ারি। দিনের হিসেবে অভিষেকের ১৫২২ দিন পর টাইগাররা তাদের প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ পায়। কতশত অপেক্ষা, প্রতীক্ষা, আর সমালোচনার তীক্ষ্ম তীরে বিদ্ধ হওয়ার পর আসে কাঙ্খিত প্রথম জয়। ঐতিহাসিক জয়।

চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে সেদিন বাংলাদেশ ২২৬ রানের বিশাল ব্যবধানে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ে। হাবিবুল বাশার বাংলাদেশের প্রথম টেস্টজয়ী অধিনায়ক হওয়ার গৌরব লাভ করেন। তার ব্যাট থেকে আসে ৯৪। আর মোহাম্মদ রফিক ৬৯ রান করার পাশাপাশি পাঁচ উইকেট নিলে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রানের লিড পায়।

হাবিবুল বাশার দ্বিতীয় ইনিংসেও হাফ সেঞ্চুরি করেন। এরপরই বাঁ-হাতের স্পিনে ভেলকি দেখান এনামুল হক জুনিয়র। তিনি ৪৫ রানে ছয় উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়েকে অলআউট করেন ১৫৪ রানে। লাল-সবুজের বিজয় কেতন প্রথম ওড়ে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে। পরে ঢাকায় দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র করে স্বাগতিকরা দুই টেস্টের সিরিজ জিতে নেয় ১-০ ব্যবধানে।

২০০৫ সালের ১০ জানুয়ারি ঐতিহাসিক জয়ের ম্যাচে দলে যারা ছিলেন তাদের মধ্যে একমাত্র মাশরাফি বিন মুর্তজা এখনও জাতীয় দলের হয়ে খেলছেন। তবে টেস্ট ক্রিকেট খেলছেন না মাশরাফি। সেই ম্যাচে দুই ইনিংসে ৫টি উইকেট নেয়ার পাশাপাশি প্রথম ইনিংসে ৪৮ রান করে বাংলাদেশের ৪৮৮ রানের বড় সংগ্রহে অনন্য ভূমিকা রেখেছিলেন।

বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ের সংক্ষিপ্ত স্কোর কার্ড :
বাংলাদেশ :
প্রথম ইনিংস : ৪৮৮/১০ (জাভেদ ওমর ৩৩, নাফিস ইকবাল ৫৬, হাবিবুল বাশার ৯৪, মোহাম্মদ আশরাফুল ১৯, রাজিন সালেহ ৮৯, খালেদ মাসুদ পাইলট ৪৯, মোহাম্মদ রফিক ৬৯, মাশরাফি বিন মুর্তজা ৪৮। এমপফু ৪/১০৯)।
দ্বিতীয় ইনিংস : ২০৪/৯ ডিক্লেয়ার (রাজিন সালেহ ২৬, হাবিবুল বাশার ৫৫, মোহাম্মদ আশরাফুল ২২, খালেদা মাসুদ পাইলট ২৩। চিগুম্বুরা ৫/৫৪)।

জিম্বাবুয়ে :
প্রথম ইনিংস : ৩১২/১০ (মাতসিকেনেরি ২৮, মাসাকাদজা ২৯, ব্রেন্ডন টেলর ৩৯, তাতেন্দা তাইবু ৯২, চিগুম্বুরা ৭১। মাশরাফি ৩/৫৯, মোহাম্মদ রফিক ৫/৬৫)।
দ্বিতীয় ইনিংস : ১৫৪/১০ (মাসাকাদজা ৫৬, ব্রেন্ডন টেলর ৪৪। এনামুল হক জুনিয়র ৬/৪৫)।

ফল : বাংলাদেশ ২২৬ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা : এনামুল হক জুনিয়।

শেয়ার করুন