৮ ফেব্রুয়ারি পুলিশকে সহযোগিতা করবে ক্ষমতাসীন দল আ.লীগ

0
1248
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক নিউজ : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের দিন আওয়ামী লীগ সতর্ক থাকবে। যেকোনো অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় পুলিশকে সহযোগিতা করবে আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে যৌথ সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা পাল্টাপাল্টি কোনো কর্মসূচি নেইনি। আমাদের এখানে সহযোগী সংগঠন ও সিটির নেতারা এসেছিল। তাদেরকে বলা হয়েছে, আমাদের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার উসকানি যেন না দেয়। আমরা যেন কোন প্রকার উসকানি না দেই।

তিনি বলেন, তারা সেদিন প্রকাশ্য দিবালোকে হাইকোর্টের সামনে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে আক্রমণ করে ভাঙচুর করে। রাইফেল পর্যন্ত ভাঙচুর করেছে। তাদের আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার বিষয়টি কিন্তু এড়িয়ে যাওয়া যায় না। এটা কোনো সাধারণ অপরাধ নয়। এটা গুরুতর অপরাধ।

এ ধরনের ঘটনা যারা ঘটাতে পারে তারা ৮ তারিখেও নাশকতার আশ্রয় নিতে পারে। পুলিশের কাছে কিছু কিছু ইনফরমেশন আছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা আজ থেকে সতর্ক থাকব। সজাগ থাকব। এ ধরনের পরিস্থিতি যখন ঘটে যাবে জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রয়োজনে আমরা পুলিশকে সহযোগিতা করব। কারণ আমরা ক্ষমতায় আছি। আমরা দায়ে পড়ে কেন অশান্তি ডেকে আনব। ক্ষমতাসীন দল দায়ে পড়ে কেন দেশে স্থিতিশীলতা ও শৃঙ্খলা নষ্ট করবে। দেশ তো শান্তিতে চলছে। আমরা কেন অশান্তি ডেকে আনব? আমাদের প্রয়োজন নেই। কিন্তু তারা যদি উসকানি দেয়, সেদিন হাইকোর্টের সামনে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে হামলার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করে, তাহলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা পরিস্থিতি মোকাবিলা করবে। প্রয়োজনে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা রক্ষায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পাশে থাকবে।

ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে মাহবুব উল আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এ কে এম এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, আব্দুস সবুর, হাবিবুর রহমান সিরাজ, সুজিত রায় নন্দী, দেলোয়ার হোসেন, হারুনুর রশিদ, আবদুস সাত্তার, ফরিদন্নাহার লাইলী, ডা. রোকেয়া সুলতানা, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, এস এম কামাল হোসেন, আনোয়ার হোসেন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাদেক খান, শাহে আলম মুরাদসহ সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাদের মধ্যে যুবলীগের হারুনুর রশিদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের মোল্লা মো. আবু কাওছার, মহিলা আওয়ামী লীগের সাফিয়া খাতুন, মাহমুদা বেগম ক্রিক, যুব মহিলা লীগের নাজমা আকতার, অপু উকিল, ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন