গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ভুমিহীনদের গণশিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদান

0
1460
Print Friendly, PDF & Email

কবির হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধি : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক ইউনিয়নের ভান্নারা এলাকায় বনের জমিতে বসবাসকারী ভুমিহীনদের মাঝে গণশিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদান উপলক্ষে শুক্রবার সকালে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মৌচাক বনবিটের উপকার ভোগীদের মাঝে মৌচাক বনবিট কর্মকর্তা সজীব কুমার মজুমদার ওই গণশিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রকল্প চালু করেন।
বনবিট সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ভান্নারা এলাকায় ১৪৮টি পরিবার বংশপরক্রমায় যুগ যুগ ধরে বনের জমিতে বসবাস করে আসছে। তারা আধুনিক অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। বনবিভাগ থেকে তাদের প্লট বরাদ্দ দিয়ে বনায়ন কর্মসুচি চালু করা হয়েছে। ফলে তারা বনায়ন থেকে অর্থ পেয়ে জীবন ধারনের ঠিকানা খুজে পেয়েছে। তাদের শিক্ষা ও চিকিৎসার তেমন কোন ব্যবস্থা না থাকায় তাদের জন্য গণশিক্ষা কার্যক্রম ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সেই লক্ষ্যে প্রতি শুক্রবার সকালে তাদের লেখাপড়া শিখানো হচ্ছে। অপরদিকে কারিতাসের সহযোগিতায় চিকিৎসক দিয়ে ফ্রি চিকিৎসা ও ওষধের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ওই দিন ওই শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনা মুল্যে বই বিতরন করা হয়। ওই প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৭০জন সদস্য রয়েছে। এদের মধ্যে ৬০জন সদস্যকে বর্তমান সরকারে মহতি উদ্যোগ একটি বাড়ী একটি খামারের আওতায় আনা হচ্ছে। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন ভান্নারা ভুমিহীন সমবায় সমিতির সভাপতি গোলাম সৈয়দ ফজর আলী চিশতি।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, মৌচাক বনবিট কর্মকর্তা সজীব কুমার মজুমদার, একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের সুপারভাইজার আশরাফুল আলম, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সরকার আব্দুল আলীম, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এম মাহবুব হাসান মেহেদী প্রমুখ।

মৌচাক বনবিট কর্মকর্তা সজীব কুমার মজুমদার বলেন, বনবিভাগের উপকারভোগীদের মাঝে ওই কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। তাদেরকে অর্থনৈতিকভাবে সহযোগিতার জন্য একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন