প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দকৃত গরীব-অসহায়দের বাড়ি বেচে দিলেন কাউন্সিলর!

0
1627
Print Friendly, PDF & Email

আলমগীর হোসেন : প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব তহবিল থেকে গরীব ও অসহায়দের জন্য বরাদ্দকৃত কিছু বাড়ি অন্যত্র বিক্রির অভিযোগ ওঠেছে গাজীপুরের কালিয়াকৈর পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আসা প্রধানমন্ত্রী বরাবর পাঠানো একটি আবেদনপত্রের অনুলিপি থেকে ওই তথ্য জানা যায়।
উপজেলার কালামপুর এলাকার মো. আমিনুর রহমান ওই আবেদনপত্র প্রেরণ করেন। তিনি একই উপজেলার বাড়ইপাড়া এলাকার দুদু মিয়ার ছেলে।
আবেদনপত্রে তিনি উল্লেখ করেন, ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব তহবিল থেকে দুস্থ ও অসহায় লোকদের জন্য টয়লেটসহ কিছু ঘরের বরাদ্দ পায় কালিয়াকৈর পৌরসভা। এরমধ্যে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং একই ওয়ার্ডের বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ ও মৃত উসমান গণির ছেলে মোঃ আবুল কাশেম ২০টি ঘরের বরাদ্দ পায়। সে অনুযায়ী বিনা খরচে ঘর দিবে জানিয়ে আমিনুর রহমানের নাম তালিকাভুক্ত করে বিভিন্ন কাগজপত্রে স্বাক্ষর নেওয়া হয়।
পরবর্তীতে আমিনুর রহমান ওই ঘর পাবে না বলে কাউন্সিলর জানালে ভুক্তভোগী পৌরসভায় গিয়ে তার নাম তালিকাভুক্ত করা হয়েছে কিনা জানতে গেলে সেখানে তার নাম দেখতে পান। বিষয়টি কাউন্সিলরকে জানালে তার কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করা হয়। এতে তিনি রাজি না হলে এবং তার দাবীকৃত টাকা না দিতে পারায় ওই ঘর অন্য ব্যক্তির কাছে বিক্রয় করে দেন কাউন্সিলর। এছাড়াও বাকী ঘরগুলো বিভিন্নজনের কাছে হস্তান্তরের সময়ও ৮/১০ হাজার টাকা করে নিয়েছেন এবং ওই টাকা আত্মসাৎ করেন কাউন্সিলর।
পরে একাধিকবার কাউন্সিলরের কাছে ঘর দাবি করলে তাকে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখানো ছাড়াও মামলায় জড়ানোর হুমকি দেওয়া হয়।
তিনি আবেদনপত্রে সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক তালিকাভুক্তদের ঘর ফিরিয়ে দিয়ে অভিযুক্ত কাউন্সিলরকে দুর্নীতির দায়ে আইনের আওতায় আনার অনুরোধ করেন।
আবেদনপত্রের অনুলিপি জেলা প্রশাসক ছাড়াও জেলা পুলিশ সুপার, দুর্নীতি দমন কমিশন, কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পৌরসভার মেয়র ও গাজীপুর প্রেসক্লাব বরাবর পাঠানো হয়।

শেয়ার করুন