কালীগঞ্জে ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশে সোপর্দ করল এলাকাবাসী

0
1450
Print Friendly, PDF & Email

আলমগীর হোসেন : গাজীপুরের কালগীঞ্জ উপজেলার পিপুলিয়ায় ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী।

গত সোমবার রাত ৯ টার দিকে তাদের আটক করে এলাকাবাসী।

আটককৃতরা হলেন -ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের বেদবাড়ীয়া গ্রামের আউয়াল মিয়ারর ছেলে আব্দুলা (২০) অপর দুইজন একই এলাকার হাটিহাতা গ্রামের মৃত আলী হোসেন ছেলে মোহাম্মদ আলী(৪৩) এবং মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আবু চাঁন (৬০)। অভিযুক্ত অন্য আরেক আসামী পিপুলিয়ার আতাউর রহমান জজ মিয়ার ছেলে হিমেল পালিয়ে যায়।

স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানান, আটককৃত তিন জন প্রায়ই ইয়াবা ক্রয় করতে পুলিশ কনস্টেবল পিপুলিয়া গ্রামের আব্দুল আল মামুনের (কায়েস) পরিচয়ে জজ মিয়ার ছেলে হিমেলের কাছে আসত। কিন্ত আমরা অনেকে চেষ্টা করেও মাদকসহ তাদের ধরতে পারছিলাম না। সোমবার ইয়াবাসহ তাদেরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করি।

স্থানীয়রা আরো বলেন, কায়েস ও হিমেল দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল।

নাগরী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড সদস্য আশফিয়াক মোহাম্মদ খালিদ বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানান পিপুলিয়া গ্রামের পুলিশ কন্সটেবল আবদুল আল মামুনের সাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় কর্মরত থাকাকালীন তাদের সাথে পরিচয় হয়। সেই সুবাদে কায়েসের সাথে ফোনে যোগাযোগ করে হিমেলের কাছ থেকে ইয়াবা নিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসীর হাতে তারা আটক হয়।

এ বিষয়ে পুলিশ কনস্টেবল কায়েসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, গ্রামবাসী তিনজনকে মারধর করে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। আর জোড় করে তাদের দিয়ে আমার নাম বলিয়েছে। আমি কিছুই জানিনা।তাদের আমি চিনিনা বা কোন দিন আমার সাথে তাদের দেখাও হয়নি।

কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোখলেছুর রহমান বলেন, গ্রেপ্তারকৃত তিনজন সহ তাদের সহযোগী পলাতক হিমেলর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত তিন আসামীর সাথে পুলিশ কনস্টেবল কায়েসের পরিচয় আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন