চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৬৭ জনের মধ্যে ৪৬ জনের লাশ হস্তান্তর

0
1641
Print Friendly, PDF & Email

গাজীপুর প্রতিদিন ডেস্ক : পুরান ঢাকার চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৬৭ জনের মধ্যে ৪৬ জনের দেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপতালে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত এ দেহগুলো হস্তান্তর করে কর্তৃপক্ষ।

বেলা ১১টার দিকে লাশের সন্ধানে আসা স্বজনদের ডিএনএ পরীক্ষা শুরু হয়। যাদের সঙ্গে ডিএনএ মিলে যাবে তারাই তাদের স্বজনদের দেহ ফিরে পাবেন।

ঢাকা জেলা প্রশাসনের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার অ্যান্ড নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মনসুর জানান, মোট ৪৬ দেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকি ২১ টি দেহ বিভিন্ন মর্গে রয়েছে। তাদের স্বজনদের ডিএনএ নমুনা গ্রহণ করছে সিআইডি।

বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সিআইডির সহকারী ডিএনএ অ্যানালিস্ট নুসরাত ইয়াসমিন বলেন। তিনি জানান, লাশের সন্ধানে থাকা স্বজনদের রক্তের নমুনা রাখা হচ্ছে। এই প্রক্রিয়া দিনব্যাপী চলমান থাকবে। পুরো বিষয়টির জন্য ৭ থেকে ২১ দিন সময় লাগবে।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর থেকে যারা নিখোঁজ রয়েছেন তাদের অনেকের খোঁজেই স্বজনেরা ভিড় করেছেন মর্গের সামনে। স্বজন হারাদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে পুরো এলাকা।

কেউ কেউ ঢাকা মেডিকেলে লাশ না পেয়ে ছুটে গেছে অন্য হাসপাতালের মর্গে। দুইদিন ধরে মর্গ থেকে মর্গে প্রিয়জনের দেহ খুঁজছেন তারা।

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টা মসজিদের পাশে একটি পাচঁতলা ভবনে আগুন লাগে। পরে আগুন আশপাশের আরো তিনটি ভবনে ছড়িয়ে পড়ে।

গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনের পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা জানান।

এ দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান, প্রাথমিক ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ এবং অগ্নি দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সুপারিশ দেওয়ার জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে ১২ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এ কমিটি আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন পেশ করবে।

শেয়ার করুন