কালিয়াকৈরে ছেলের লাঠির আঘাতে মা খুন

0
1241
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক রিপোর্ট : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মহরাবহ চরপাড়া এলাকায় নিজের মাকে খুন করলো আলতাফ হোসেন (৩০) নামের এক যুবক। নিজ মাকে হত্যার পর আলতাফ এলাকার পাশের এক বাড়ীতে পলাতক ছিল। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী নিহতের ছেলে ঘাতক আলতাফকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

বুধবার সকাল সাড়ে ৬টার সময় আটাবহ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মহরাবহ চরপাড়া এলাকায় মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটে। পরে বেলা সাড়ে তিনটার সময় পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত ভুলি বেগম (৫০) মহরাবহ চরপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী। অপরদিকে ঘাতক আলতাফ হোসেন আবুল হোসেনের বড় ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, উপজেলার মহরাবহ চরপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের বড় ছেলে আলতাফ হোসেন (৩০) পারিবারিক কলহের জেরে বুধবার সকালে মায়ের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে লাঠি দিয়ে তার মাকে স্বজোড়ে মাথায় কয়েকটি আঘাত করলে কপালে এবং বাম কানের উপড়ে ফেটে যায়। এসময় ছেলের লাঠির প্রচন্ড আঘাতে ভূলি বেগম মাটিতে লুটিয়ে পড়ে গেলে প্রতিবেশিরা গুরুতর আহত ভুলি বেগমকে স্থানীয় পল্লীচিকিৎসক জয়নাল আবেদীনের নিকট নিয়ে যায়, তিনি তার মাথার অতিরিক্ত রক্তক্ষরন দেখে তা বন্ধের জন্য কপালে এবং বাম কানের উপড়ে প্রায় ৮থেকে ১০টি সেলাই দেয়ার পর তাকে দ্রুত সাভার এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভুলি বেগমকে মৃত ঘোষনা করেন ।

কালিয়াকৈর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) খান মো. আবুল কাশেম জানান, ছেলের লাঠির আঘাতে মা খুনের ঘটনায় ছেলেকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দীন আহম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন