গাজীপুরে জাল পাসপোর্ট করতে এসে গ্রেপ্তার-৩

0
1156
Print Friendly, PDF & Email

গাজীপুর প্রতিদিন ডেস্ক : গাজীপুরে ভূয়া কাগজপত্র দিয়ে পাসপোর্ট এর আবেদন করায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কাপাসিয়া উপজেলার লোহাদী গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে মো. আব্দুর রাজ্জাক (৪৬), ফারুক হোসেন ও কম্পিউটার অপারেটর রফিকুল ইসলাম।

তথ্যসূত্র, মো. মনির হোসেন বর্তমানে বিদেশে অবস্থান করছেন। তিনি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার গাওরার গ্রামের মো. সিরাজ উদ্দিনের সন্তান। কিন্তু তার জাতীয় পরিচয়পত্র ও অন্য তথ্য দিয়ে পাসপোর্টের আবেদন করেন একই উপজেলার লোহাদী গ্রামের মো. আব্দুর রাজ্জাক ।

গত ২৪ জুন রাজ্জাক পাসপোর্টের জন্য গাজীপুর আঞ্চলিক অফিসে আবেদন করেন। রাজ্জাকের আবেদনের প্রেক্ষিতে তথ্য যাচাইয়ের দায়িত্ব পান এসআই জামাল উদ্দীন। তিনি কাগজপত্র যাচাই করে আবেদনকারীর আবেদনের তথ্যের সঙ্গে কোনো মিল পাননি। ২৬ জুন এসআই জামাল নিশ্চিত হন, পাসপোর্টের আবেদনকারী রাজ্জাকের জাতীয় পরিচয়পত্রের ব্যবহার করা সংখ্যা (ডিজিট) ও বয়স যথার্থ নয়।

পুলিশের বিশেষ শাখায় কর্মরত আমিনুর রহমান জানিয়েছেন, তদন্তকালে রাজ্জাককে বিশেষভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি আসল ঘটনা স্বীকার করেন। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেওয়া তথ্য মতে আরও দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজ্জাক পুলিশকে জানিয়েছেন, জাতীয় পরিচয়পত্রে উল্লেখিত বয়স এবং জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বরটি তার নিজের নয়। আসল জাতীয় পরিচয়পত্রে উল্লেখ করা বয়স বেশি হওয়ায়, তিনি বয়স কমিয়ে পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য মো. ফারুক হোসেন ও কম্পিউটার অপারেটর মো. রফিকুল ইসলামের সহায়তায় একটি নকল জাতীয়পত্র তৈরি করেন। পরে এসব কাগজ দিয়ে পাসপোর্টের আবেদন করেন।

পুলিশ ফারুক হোসেন ও কম্পিউটার অপারেটর রফিকুল ইসলামকেও গ্রেপ্তার করেছে। তাদের নামে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।

শেয়ার করুন