কালিয়াকৈরে সেফটি ট্যাংক থেকে গৃহবধূর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার, আটক-৪

0
1025
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক নিউজ : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চান্দরা পল্লীবিদ্যুৎ উত্তর পাড়া এলাকার একটি সেফটি ট্যাংক থেকে হত্যার আড়াই মাস পর ফরিদা বেগম (৩৫) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী, তার প্রথম স্ত্রী, ছেলে ও বাড়ির মালিকের স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত বুধবার সকালে উপজেলার চান্দরা পল্লীবিদ্যুৎ উত্তরপাড়া খাঁজারডেক এলাকার প্রয়াত আতাব উদ্দিন দেওয়ানের বাগানবাড়ির সেফটি ট্যাংক থেকে নিহতের অর্ধগলিত মরদেহটি উদ্ধার করেন।

নিহত ফরিদা বেগম পাবনা জেলার আতাইকুলা থানার শ্রীপুর এলাকার মুনসুর আলীর তৃতীয় স্ত্রী।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নিহতের স্বামী মুনসুর আলী, তার প্রথম স্ত্রী রেখা বেগম, ছেলে স্বপন মিয়া এবং বাগানবাড়ির মালিক মৃত.আতাব উদ্দিন দেওয়ানের স্ত্রী খোঁদেজা বেগম।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন মজুমদার জানান, গতকাল রাতে আশুলিয়া থানার শিমুলিয়া দীঘিরপাড় এলাকার একটি বাড়ি থেকে মুনসুরকে গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে। পরে তার দেওয়া তথ্য মতে সকালে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ওই সেফটি ট্যাংক থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

শেয়ার করুন